আকাশের দিকে তাকিয়ে আজ মনে হল এই শহরে খুব ভয়ানক কিছু একটা ঘটে গেছে। মারাত্মক সুন্দর এক চাঁদ চুপচাপ অপেক্ষা করছে ওখানে। আর আমি আমাদের জরাজীর্ণ বাড়িটার শহুরে ছাদে বসে নিজের দীর্ঘশ্বাস গুণছি। এই বিচ্ছিরি শহরটাতে বসবাস করে একজীবনের কত সাধকে যে প্রতিনিয়ত গলা টিপে হত্যা করে যাচ্ছি তার হিসেব কেউ কী রাখে? জান্নাতে কোনো কান্না নেই; এটাই একমাত্র আশার কথা। আপাতত ভাড়া করা শহুরে চাঁদ দিয়েই প্রয়োজন মেটাই। শো-পিসেরও একটা আলাদা সৌন্দর্য আছে।

চারিদিকে ছড়ানো হাজারটা অসুন্দরের মাঝে মোটামুটি বিপ্লব করে তাকে তার সৌন্দর্য ফুটিয়ে তুলতে হয়। এও আর কম কিসে?